শিরোনাম

নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় আহত মুন্সীগঞ্জের দুই যুবক

স্টাফ রিপোর্টার: নেপালের কাঠমান্ডুতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান দুর্ঘটনায় মুন্সীগঞ্জের দুই যুবক আহত হয়েছেন। তারা নেপালে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আহতরা হলেন, টঙ্গীবাড়ি উপজেলার কামারখাড়া ইউনিয়নের বেশনাল গ্রামের ইউনুছ বেপারির ছেলে ইয়াকুব আলী রিপন ও লৌহজং উপজেলার কলমা ইউনিয়নের বান্দেগাঁও গ্রামের মৃত সাইফুল ইসলামের ছেলে মো. শাহীন বেপারি।

ইয়াকুব আলী রিপন ৬ ভাই-বোনের মধ্যে বড়। প্রায় ৮ বছর আগে আখি আক্তারের সঙ্গে তার বিবাহ হয়। দাম্পত্য জীবনে তাদের ইয়ানুর নামের ৬ বছরের একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে। স্ত্রী সন্তান নিয়ে ইয়াকুব ঢাকার মোহাম্মদপুরের আদাবর এলাকার প্রপাল হাউজিংয়ের ২ নম্বর রোড়ের ৪২/সি নাম্বার বাসায় বসবাস করেন। রিপন মোহাম্মদপুর টোকিও প্লাজার ১৫৭ নং দোকানের ব্রাদাস দ্যা সপ কসমেটিক্সের একটি দোকানের স্বত্বাধিকারী।

 

রিপনের ছোট ভাই টিপু বেপারি জানান, মঙ্গলবার আমার ছোট ভাই দিপু বেপারি সরকারি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে নেপাল যান।  দুপুর ১টার দিকে সে ফোন করে জানায়, আমাদের বড় ভাই ইয়াকুব আলী রিপন নেপালের কাঠমান্ডু এলাকার নবলিব হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলে দিপু জানতে পারে বর্তমানে তাদের বড় ভাই রিপন আইসিইউতে আশংকামুক্ত অবস্থায় রয়েছে।

 

এদিকে, শাহীন বেপারি ৬ ভাই বোনের মধ্যে চতুর্থ। তিনি বাংলাদেশ শান্তি সংঘের সদস্য ও সদরঘাটের বিক্রমপুর গার্ডেন সিটি মেসার্স করিম এন্ড সন্সের ম্যানেজার। তিনি কোম্পানি থেকে বার্ষিক প্রমতভ্রমণে নেপাল গিয়েছিলেন। বর্তমানে শাহীন কাঠমান্ডু মেডিকেল কলেজের সার্জারি বিভাগে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বাংলাদেশ শান্তি সংঘের সভাপতি আলহাজ মো. ইয়াছিন শেখ তার খোঁজ খবর নিচ্ছেন।

শাহীনের ছোট ভাই চঞ্চল বেপারি ইতিমধ্যে বড় ভাইকে দেখতে নেপালের উদ্দেশ্য রওনা হয়েছেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ শান্তি সংঘের সাংগঠনিক সম্পাদক তাজুল ইসলাম রাকীব। শাহীন বাংলাদেশের সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন বলেও জানান তিনি।

Be the first to comment on "নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় আহত মুন্সীগঞ্জের দুই যুবক"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*