ইউএস-বাংলা বিমান দুর্ঘটনায় কাঠমন্ডুর আইসিইউ’তে টঙ্গিবাড়ির ইয়াকুব আলী

 

রিয়াদ হোসাইনঃ গতকাল কাঠমন্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় ঢাকা থেকে নেপালগামী ইউএস – বাংলা এয়ারলাইন্সের একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়। এতে গুরুত্বর  আহত হয়ে কাঠমান্ডুর কিং হাসপাতালের আইসিইউ’তে ভর্তি রয়েছে মুন্সীগঞ্জের ইয়াকুব আলী রিপন।

 

টঙ্গিবাড়ি উপজেলার কামারখাড়ার ইউনিয়নের বেশনাল গ্রামের বাসিন্দা ইউনুস বেপারীর বড় ছেলে ইয়াকুব আলী রিপন। গত সোমবার ১২টা ৫৮মিনিট হযরত শাহাজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে নেপালের উদ্দেশ্যে পাড়ি দেন তিনি। নেপালের স্থানীয় সময় ২টা ২০ মিনিট বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। সে সময় বিধ্বস্ত বিমান থেকে নেপালের উদ্ধারকারি একটি টিম তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য নেপাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিয়ে যান। সেখান থেকে হস্তান্তর করে কাঠমান্ডু কিং হাসপাতালের আইসিইউ’তে ভর্তি করেন।

 

প্রথমে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর ফেসবুকে বিমান দুর্ঘটনায় বাংলাদেশিদের নিহতদের তালিকায় ইয়াকুব আলীর নাম দেখা যায় ।কিন্তু আজ সকালে ইয়াকুব আলীর ছোট ভাই মোঃ দিপু বেপারী নেপালের কিং হাসপাতালে অবস্থান করে । কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে নিশ্চিয়তা করেন তার বড় ভাই ইয়াকুব আলী এখনও জীবিত রয়েছে এবং আইসিইউ থেকে হস্তান্তর করে অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয়েছে বলে জানান, তার ছোট ভাই মোঃ দিপু বেপারী।

 

ইয়াকুব আলীর চিকিৎসক সারাসওতি জানান, ইয়াকুব আলী মারাত্মক ভাবে জখম হয়েছে । অনুনাসিক এরিয়ায় অপারেশন করার জন্য তাকে অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয়েছে।

Be the first to comment on "ইউএস-বাংলা বিমান দুর্ঘটনায় কাঠমন্ডুর আইসিইউ’তে টঙ্গিবাড়ির ইয়াকুব আলী"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*